গুগল এবং জিমেইল নাম দুটি আমরা সচরাচর শুনি। এবং এবং আমরা গুগল একাউন্ট এবং জিমেইল অ্যাকাউন্ট বিষয় দুটি কে একই মনে করি। বিষয় দুটি একই মনে হলেও আসলে দুটি আলাদা বিষয়। গুগল অ্যাকাউন্ট এবং জিমেইল একাউন্ট এর মধ্যে মূল পার্থক্যটি হলো গুগোল একাউন্ট ব্যবহার করে গুগোল এর সকল সেবা উপভোগ করা যায় এবং জিমেইল হলো গুগলের সবগুলো সেবার মধ্যে একটি সেবা। আমরা এই পোষ্টের মাধ্যমে গুগল একাউন্ট এবং জিমেইল একাউন্টের পার্থক্য গুলি বিস্তারিত আলোচনা করেছি সুতরাং পোস্টটি সম্পূর্ণ পড়লে আপনি গুগল একাউন্ট এবং জিমেইল একাউন্ট এর মধ্যে পার্থক্য সুন্দরভাবে বুঝতে পারবেন। Read in English

গুগল একাউন্ট কি

গুগল অ্যাকাউন্ট হলো গুগল গুগোল সম্পর্কিত বিভিন্ন সেবা যেমন জিমেইল, ড্রাইভ, সার্চ, ম্যাপ, প্লে স্টোর, মিট, ক্যালেন্ডার, ক্লাসরুম হ্যাংআউটস গুগল এড ইত্যাদি ব্যবহার করার জন্য একটি অ্যাকাউন্ট। আর এসব সেবা গুলোর মধ্যে একটি হচ্ছে গুগল মেইল বা জিমেইল। জিমেইল অ্যাকাউন্ট তৈরি করতে হলে প্রথমে আপনাকে গুগল অ্যাকাউন্ট তৈরি করতে হবে। খুব সহজে গুগোল অ্যাকাউন্ট তৈরি করা যায়। নাম ফোন নাম্বার ইত্যাদি তথ্য প্রদান করেন গুগল একাউন্ট খুলে যায়। গুগল অ্যাকাউন্ট ব্যবহার করে গুগোলের সকল সেবাগুলো ব্যবহার করা যায়। যেমন ইউটিউবে ভিডিওতে লাইক কমেন্ট করা এবং প্লে লিস্ট তৈরি করা অথবা ইউটিউব এ চ্যানেল খোলার ইত্যাদি সকল কার্যক্রমের জন্য প্রথমে গুগোল একাউন্ট এর প্রয়োজন এছাড়াও মোবাইল ফোনে প্লে স্টোর চালাতে গুগোল একাউন্ট এর প্রয়োজন। তবে গুগলের আরো কিছু সেবা রয়েছে যেগুলো গুগোল একাউন্ট ছাড়াও ব্যবহার করা যায় যেমন গুগল ম্যাপস গুগোল বুকস ইত্যাদি।

জিমেইল একাউন্ট কি

ইন্টারনেট ব্যবহার করে মুহূর্তের মধ্যে ডিজিটাল মেলা বার্তা আদানপ্রদান করার একটি মাধ্যম হলো ইমেইল। বর্তমানে অনেক ইমেইল সেবা থাকলেও জিমেইল এর জনপ্রিয়তা সবথেকে বেশি। গুগলের এই ইমেইল সেবা যেকোনো ইন্টারনেট সংযুক্ত ডিভাইসে ব্যবহার করা যায়। এই জিমেইল অ্যাকাউন্ট ব্যবহার করতে হলে প্রথমে আপনাকে জিমেইল একাউন্ট খুলতে হয় তবে আপনার যদি গুগল অ্যাকাউন্ট থাকে তাহলে আপনাকে আলাদা করে আর জিমেইল একাউন্ট খোলার প্রয়োজন হবে না। সরাসরি গুগল অ্যাকাউন্ট ব্যবহার করে আপনি মেইল একাউন্ট ব্যবহার করতে পারবেন। একাধিক প্রাপকের একই মেইল পাঠানোর পাশাপাশি গুগোল ড্রাইভ ব্যবহার করেছে কোন সাইজের ফাইল মেইল যায় জিমেইল এর মাধ্যমে। এছাড়াও ভাইরাস প্রটেকশন, স্পাম ফিল্টার ও ইমেইল রিমান্ডের মত অসাধারণ কিছু ফিচার রয়েছে জিমেইলে অর্থাৎ ইমেইল ক্লায়েন্ট এর মধ্যে সবথেকে বেশি জনপ্রিয় এবং অসাধারণ ফিচার সমৃদ্ধ একটি ইমেইল মাধ্যম।

গুগল অ্যাকাউন্ট ও জিমেইল একাউন্ট এর মধ্যে পার্থক্য

গুগলের নানা রকমের সুবিধা ব্যবহার করার জন্য ব্যবহারকারীরা গুগোল একাউন্ট তৈরি করে এবং জিমেইল অ্যাকাউন্ট তৈরি করেন ইমেইল ম্যানেজ করার জন্য। গুগোল একাউন্ট এবং জিমেইল একাউন্ট এর মধ্যে পার্থক্য আরেকটু ভালোভাবে ব্যাখ্য করি

ব্যবহার

গুগোল একাউন্ট ব্যবহার হয় গুগলের যে সেবাগুলি আছে তা ব্যবহার করার জন্য। গুগল সার্চ থেকে শুরু করে গুগোল ড্রাইভ পর্যন্ত যত রকমের গুগলের সেবার রয়েছে সবকিছু ব্যবহার করতে প্রয়োজন একটি গুগোল অ্যাকাউন্ট। অন্যদিকে জিমেইল হলো গুগলের অসংখ্য সেবাগুলোর মধ্যে 1 টি যার মাধ্যমে ইমেইল ম্যানেজ করা এবং যোগাযোগ করা হয়।

অ্যাকসেস

কিছু তথ্য এবং ফোন নাম্বার দিয়ে খুব সহজেই গুগোল অ্যাকাউন্ট তৈরি করা যায় এবং এই গুগল অ্যাকাউন্ট ব্যবহার করে গুগোল এর সমস্ত ফিচার আপনি উপভোগ করতে পারবেন। অন্যদিকে জিমেইল অ্যাকাউন্ট তৈরি করতে হবে প্রথমে একটি গুগোল অ্যাকাউন্ট থাকা অবশ্যক অর্থাৎ আপনি জিমেইল ব্যবহার করার ক্ষেত্রেও আপনার গুগোল অ্যাকাউন্ট থাকতে হবে।

সুতরাং বলা যায় গুগলের যেকোনো প্রয়োজনে আপনার গুগোল অ্যাকাউন্ট প্রয়োজন আর জিমেইল অ্যাকাউন্ট প্রয়োজন শুধুমাত্র ইমেইল করার ক্ষেত্রে। আশা করি এরপর থেকে গুগল একাউন্ট এবং জিমেইল একাউন্টে পার্থক্যটি ভালোভাবে বুঝতে পেরেছেন। এছাড়াও আপনারা যে কোন বিষয়ে জানতে আগ্রহী হলে আমাদের কমেন্ট বক্সে জানান আমরা চেষ্টা করবো এই বিষয়ে বিস্তারিত আলোচনা করতে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.