বেশি জনপ্রিয় একটি মেসেজিং মাধ্যম হচ্ছে হোয়াটসঅ্যাপ। অনেকই ফেসবুক মেসেঞ্জার ইমো বা অন্যান্য মেসেজিং সার্ভিস এর চেয়ে হোয়াটসঅ্যাপ বেশি পছন্দ করে থাকেন। আর এইজন্য বিশ্বব্যাপী প্রায় ২০০ কোটির বেশি মানুষ হোয়াটসঅ্যাপ ব্যবহার করছেন। পৃথিবীতে প্রায় ১৮০ টির বেশি দেশ জুড়ে রয়েছে এই হোয়াটসঅ্যাপ এর ব্যবহার। তবে মিটার মালিকানাধীন এই হোয়াটসঅ্যাপের ডেভলপমেন্ট কিছুটা ছিল বলে অভিহিত করেছেন অনেক প্রযুক্তিবিশ্লেষক তারপরও প্রতিযোগী হিসেবে গুলোর চেয়ে এখন অনেক এগিয়ে রয়েছে হোয়াটসঅ্যাপ। Read in English

ইদানিংকালে এসব অ্যাপের মাধ্যমে যোগাযোগ শুধু যে মেসেজ কিংবা অডিও ভিডিও কলের মধ্যে সীমাবদ্ধ তা কিন্তু নয়। মিডিয়া শেয়ারিং থেকে শুরু করে ভয়েস নোট পাঠানো পর্যন্ত অনেক রকমের জনপ্রিয় কিছু ফিচার রয়েছে এসব অ্যাপস এর। ব্যবহারকারী রয়েছেন যারা সময় নিয়ে লিখতে খুব একটা পছন্দ করেন না। এছাড়া কল করে কথা বলতে তাদের শিডিউলের সমস্যা হয় কেননা এক্ষেত্র উভয়পক্ষেরই একই সময়ে কলে উপস্থিত থাকতে হয়। আর এ জন্য ভয়েস মেসেজ এতটা জনপ্রিয়তা পেয়েছে। কেননা ভয়েস মেসেজের মাধ্যমে সবাই যে যার সুবিধা মত মেসেজ পাঠাতে পারবে কম সময়ে বেশি তথ্য আদান-প্রদানের সাহায্য করে।

হোয়াটসঅ্যাপ এর নতুন ফিচার

সারা বিশ্বে অ্যান্ড্রয়েড ব্যবহারকারী সংখ্যা সব থেকে বেশি এজন্য হোয়াট্সঅ্যাপ এ ক্ষেত্রে একটি গুরুত্বপূর্ণ প্ল্যাটফর্ম হচ্ছে অ্যান্ড্রয়েড। কিন্তু হোয়াটসঅ্যাপের অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপে এতদিন একটি গুরুত্বপূর্ণ ভয়েস মেসেজ ফিসার ছিল না। সেটি হচ্ছে ভয়েস মেসেজ দিলে কলিং করার সময় পব্জ করার অপশন। ভয়েস মেসেজের ক্ষেত্রে এই অপশনটা খুব গুরুত্বপূর্ণ একটি ফিচার। কেননা ভয়েস নোট রেকর্ড করার সময় আপনি হয়তো কিছু একটা মনে করতে পারছেন না কিংবা মেসেজটি রেকর্ড এর মাঝখানে কেউ আপনাকে কোন প্রশ্ন জিজ্ঞেস করলাম আপনার উত্তর দেওয়া খুব প্রয়োজন অথবা ধরুন আপনি ভয়েস মেসেজ রেকর্ড করার সময় আপনার হঁচি পেলো। এরকম অবস্থায় আপনি কি করবেন? যদি আপনি রেকর্ডিং অফ করে দেন তাহলে আপনাকে অসম্পূর্ণ মেসেজটি পাঠাতে হবে অথবা আপনাকে ওই অসম্পূর্ণ মেসেজটি পুরোটাই ডিলিট করে আবার নতুন করে রেকর্ড করাতে হবে। এক্ষেত্রে পুরো আবার মেসেজ রেকর্ড করার সময় আবার কোনো সমস্যা দেখা দিলে আবারো সেই মেসেজটি সম্পন্ন হবে না। তবে এই সমস্যার সুন্দর একটি সমাধান হচ্ছে ভয়েস রেকর্ড পব্জ অপশনটি।

কিভাবে ব্যবহার করবেন?

এই অপশনটির মাধ্যমে রেকর্ড চলাকালীন সময়ে আপনি রেকর্ড করার সাময়িকভাবে থামিও অন্য কোন কাজ করে আবার বাকি অংশ রেকর্ড শুরু করতে পারবেন। এতে করে আপনার পূর্বের রেকর্ড করা ভয়েস নোট মুছে যাবে না। বরং আপনি এভাবে বিরতি নিয়ে ধীরে ধীরে ভয়েস রেকর্ড করতে পারবেন। দুদিনের সুবিধাটি শুধুমাত্র আইফোন এবং দেক্সটপ ব্যবহারকারীদের জন্য উপলভ্য ছিল। কিন্তু অ্যান্ড্রয়েড ব্যবহারকারীদের জন্য হোয়াটসঅ্যাপে এই সুবিধা ছিল না।

whatsapp-voice-note-pause

ছবি : ইন্টারনেট থেকে সংগৃহিত

তোকে অ্যান্ড্রয়েড ব্যবহারকারীদের জন্য একটি সুখবর হচ্ছে ভয়েস রেকর্ড পব্জ অপশনটি এখন এন্ড্রয়েড ব্যবহারকারীরা উপভোগ করতে পারবে। আপনার হোয়াটসঅ্যাপে এই সুবিধাটি এখনো না এসে থাকলে মন খারাপ করার কোন কারণ নেই। এই ফিচারটি উপভোগ করার জন্য আপনার হোয়াটসঅ্যাপ থেকে আপডেট করে তাহলে আশা করি এই অপশনটি আপনার হোয়াটসঅ্যাপে যুক্ত হয়ে যাবে।

নতুন ফিচার এর সুবিধা

এই ফিচারটি উপভোগ করার জন্য আপনাকে যা করতে হবে তা হল হোয়াটস এপে প্রবেশ করে ভয়েস অপশনে ক্লিক করে উপরের দিকে লক অপশনে গিয়ে ছেড়ে দিতে হবে তাহলে আপনার ভয়েস মেসেজ অপশন দেখতে পাবেন। শুক্রবারে কোন দিকে বসে আছি সুতরাং এখন থেকে আর কোনো সমস্যায় পড়তে হবে না আপনার ভয়েস মেসেজ রেকর্ড করতে করতে কোন কাজ এসে পড়লে আপনি সে কাজ করে এসে আবার ওখান থেকে রেকর্ডিং শুরু করতে পারেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published.