ধূমপান খুব খারাপ একটি অভ্যাস। এটি ক্রমেই একজন মানুষ কে শেষ করে ফেলে। কিভাবে ধূমপান এর মতো খারাপ অভ্যাস দূর করা যায়, আজ সেগুলো নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা করা হয়েছে। নিচের অভ্যাস গুলো শুরু করে আপনি ও ধুমপান থেকে বেচে থাকতে পারেন। Read in English

ধুমপান থেকে বাচতে এই অভ্যাস গুলো তৈরী করুন

(১) সিগারেটে আর একটাও টান দেওয়া যাবে না। যখন আপনি সিদ্ধান্ত নিয়ে ফেলেছেন ধূমপান ছাড়বেন তখন আর একটাও সিগারেটে টান দেওয়া যাবে না। গবেষণায় দেখা গেছে একটা সিগারেট একটা টান দেব এর জন্য সিগারেট ছাড়া টা খুবই দুরূহ হয়ে উঠেছে। একটা টান দেওয়ার পরে বেশিরভাগ ধূমপায়ী আবার আগের অবস্থায় ফিরে যায় সেই জন্য আপনাকে শক্ত থাকতে হবে যে আর একটা সিগারেটও খাওয়া যাবেনা। যেসব জিনিস দেখলে আপনার ধূমপান করতে মন চাইবে যেমন সিগারেট, লাইটার, অ্যাশট্রে সেগুলো সরিয়ে ফেলবেন। আপনি যে সকল জায়গায় ধূমপান করতেন সে সকল জায়গা এড়িয়ে চলবেন। যে সময় গুলোতে আপনি ধূমপান করতেন সেই সময়গুলোতে নিজেকে অন্য কাজে ব্যস্ত রাখবেন। কিছু খাবার ধূমপান এর স্বাদ বাড়িয়ে দেয় এবং ধূমপানকে আরও আকর্ষণীয় করে তোলে সেগুলো হলো মাংস, চা-কফি, কোমল পানীয় ইত্যাদি। তাই এগুলো পরিহার করবেন।

আবার কিছু খাবার ধূমপান এর স্বাদ কে নষ্ট করে যেমন ফলমূল ও শাকসবজি এগুলো বেশি বেশি খাবেন।

(২) ধূমপান বন্ধ করলে আপনাদের প্রথম কিছুদিন অনেক খারাপ লাগবে। এই খারাপ লাগা কাটিয়ে ওঠার পরিকল্পনা আপনাকে আগে থেকেই করে নিতে হবে। শরীরে কিছু বিরূপ প্রতিক্রিয়া দেখা দিতে পারে সেগুলো হলো অস্থির লাগা মেজাজ খিটখিটে হওয়া ক্লান্ত লাগা ঘুমের সমস্যা কোষ্টকাঠীন্য কোনো কাজে মনোযোগ না দিতে পারা। এগুলো দেখা দিলে ঘাবড়ে যাবেন না জানবেন এইগুলো স্বাভাবিক এবং কিছুদিনের মধ্যেই সেরে যাবে। নিজেকে বুঝিয়ে নিবেন এই খারাপ লাগার সময় আপনার শরীরের কতটা উপকার হচ্ছে।

(৩) ধূমপান এর ইচ্ছা দমন করে রাখতে হবে। যখন সিগারেট একটা টানও খুব ইচ্ছে করবে তখন সেটি ঠেকানোর চেষ্টা করবেন। এই তাড়না দুই মিনিটের মধ্যে সবচাইতে বেশি প্রবল হয় তাই নিজের মনকে অন্যদিকে নিতে হবে।

কিভাবে করতে পারেন তিনটা উপায় বলছি

(i) একজন বন্ধু নির্বাচন করে রাখুন। যখন ধূমপান করতে ইচ্ছে করবে তাকে ফোন দিন সে আপনাকে ধূমপান না করার জন্য উৎসাহিত করবে এবং আপনাকে ধূমপান ছাড়তে সাহায্য করবে।

(ii) আপনি যে কারণে ধূমপান ছাড়তে চান সে ব্যক্তির কথা মনে করেন। ধরুন আপনি আপনার মেয়ের জন্য ধূমপান ছাড়তে চান তাহলে সাথে তার একটি ছবি রাখতে পারেন। যখন আপনার ধূমপান করতে ইচ্ছে করবে তার ছবিটি দেখুন তাহলে ধূমপান করার ইচ্ছে আপনার কমে আসবে।

(iii) বাইরে থেকে একটু হেঁটে আসতে পারেন যদি হাঁটতে গিয়ে বাইরে টং দোকান থেকে সিগারেট খাওয়ার ইচ্ছে জাগে তবে সেটাও বর্জন করুন।

(৪) ধুমপান করেনা এমন বন্ধুর সাথে বেশি সময় কাটানোর চেষ্টা করুন। কেউ আপনাকে ধূমপান করতে বললে কিভাবে না বলবেন সেটাই চেষ্টা করুন। বলতে পারেন আমি তো ধূমপান ছেড়ে দিয়েছি ধন্যবাদ আমি ধুমপান করি না। যদি এমন কোন বন্ধু থাকে সে ধূমপান ছেড়ে দিয়েছে তবে তাদের কাছ থেকে পরামর্শ নিতে পারেন যে তারা কি কি উপায়ে ধূমপান ছাড়তে পেরেছে।

(৫) প্রতিদিন ব্যায়াম করুন। প্রতিদিন কমপক্ষে পাঁচ মিনিট ব্যায়াম করলে ধূমপান করার ইচ্ছেটা অনেকটাই কমে আসবে।

(৬) কিছু ওসুধ নিকোটিন, ইনহেলার প্যাচ, স্প্রে এগুলো আপনাকে সাহায্য করতে পারে। এগুলো আপনার ধূমপানের ইচ্ছে কমাবে। চিকিৎসকের পরামর্শ অনুযায়ী যেটা ভালো হবে সেটা শুরু করতে পারেন।

(৭) ছেড়ে দেওয়ার পরে আবার ধূমপান করলে নিরাশ হবেন না। আপনি একা নন সিংহভাগ ধূমপায়ী প্রথমবার ধূমপান ছাড়তে গিয়ে ব্যর্থ হন। যারা ধূমপান ছেড়েছেন তাদের বেশিরভাগই কয়েক বার চেষ্টার ফলে সফল হয়েছেন। ধূমপান ছাড়তে তাই আপনি ধূমপান ছাড়ার পরে কোনো কারণে যদি আবার ধূমপান করে ফেলেন নিরাশ হবেন না। কোন পরিস্থিতির জন্য আপনি নিজেকে আটকাতে পারেননি সেটা যাচাই করবেন যাতে একই ভুল আর না হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published.