স্মার্ট হব কিভাবেঃ স্মার্ট হওয়ার সহজ উপায় গুলো সম্পর্কে আমাদের সবারই জানা দরকার। স্মার্ট হওয়া টা কিন্তু অতটা সহজ নয়। স্মার্ট হতে গেলে যথেষ্ট নিয়ম-কানুন অনুসরণ করতে হবে এবং গুণাবলী থাকতে হবে। তাহলে আপনাকে অবশ্যই জানতে হবে এই নিয়ম কোনগুলো কি এবং কি কি গুণাবলী থাকা প্রয়োজন। আর আমি আজকের এই পোস্টের মাধ্যমে আপনাদেরকে সেই সকল নিয়ম গুলো এবং গুণাবলীগুলো সম্পর্কে জানিয়ে দেব। Read in English 

আপনি যদি এই সকল নিয়মকানুনগুলো আপনার জীবনে প্রতিষ্ঠিত করতে পারেন তাহলে আপনিও স্মার্ট হয়ে উঠতে পারবেন। স্মার্ট হওয়ার সহজ কয়েকটি বিষয় আজকের এই আলোচনার মাধ্যমে আপনাকে জানাচ্ছি। তাই আপনাকে বলব আপনি মনোযোগ সহকারে আমাদের আজকের এই আলোচনায় গুলো পড়ুন। তাহলেই আপনি ও স্মার্ট হয়ে উঠতে পারবেন। স্মার্ট হব কিভাবে

স্মার্ট হব কিভাবে?

স্মার্ট কিভাবে হতে পারবেন এই বিষয়ে বিস্তারিত জানতে হলে অবশ্যই প্রথমে আমাদের জানতে হবে স্মার্টনেস বলতে কী বোঝায়? স্মার্টনেস হচ্ছে এমন একটি বুদ্ধিমত্তা যেটার দ্বারা সঠিক বিবেক-বুদ্ধি অনুযায়ী যে কোন কাজ করা যায়। অন্যদের সাথে ভালো আচরণ, নিজের ভুল থেকে শিক্ষা নিয়ে কাজ করা, কোন একটি কাজে ব্যস্ত থাকা অবস্থাতেও চারিদিকের বিষয়ে নজর রাখা, সবার সাথে বিনয়ী এবং জ্ঞানী হওয়া স্মার্টনেসের অংশ। এছাড়াও যে কোন কাজ সঠিকভাবে সুন্দরভাবে সম্পাদন করা, যেকোনো বিষয়ে দক্ষতার সাথে একটি ধারণা বের করা সবকিছুই স্মার্টনেস কি বুঝায়। স্মার্ট হব কিভাবে

স্মার্ট হব কিভাবে

তাহলে আমরা জেনে নিলাম স্মার্টনেস বলতে কি বুঝায়। এখন আমরা এমন কয়েকটি পদ্ধতি সমূহ সম্পর্কে জানবো যেগুলোর মাধ্যমে আমরা স্মার্ট হয়ে উঠতে পারি। স্মার্ট হব কিভাবে

স্মার্ট হয়ে ওঠার পদ্ধতি

স্মার্ট হয়ে ওঠার জন্য কিছু টিপস নিচে প্রদান করা হলো। এই টেস্ট গুলো ফলো করলে আশা করা যায় আপনি ধীরে ধীরে স্মার্ট হয়ে উঠতে পারবেন।

মানুষের সাথে চলাফেরা দক্ষতা অর্জন করুন

স্মার্ট শব্দটি মূলত মানুষ ও সমাজের ক্ষেত্রেই প্রযোজ্য। আর সামাজিক জীব হিসেবে মানুষের সাথে আপনার আচার-আচরণ ব্যবহার কেমন সেটার ওপরেই স্মার্টনেস নির্ভর করে। আপনি যতটা স্মার্ট হবেন আপনার জীবন যাপন লাইফ স্টাইল সবকিছু সেই অনুযায়ী পরিবর্তন হবে। স্মার্ট হব কিভাবে

  • সবার সাথে নম্র ও ভদ্র ব্যবহার করুন।
  • কথা বলার সময় মুখে হাসি রাখুন এবং চোখে চোখ রেখে কথা বলার অভ্যাস করুন।
  • ইতিবাচক চিন্তা করুন।
  • সৎ থাকুন এবং ওয়াদা রক্ষা করার চেষ্টা করুন।
  • অপর পক্ষের কথা মনোযোগ সহকারে শুনে তারপরে উত্তর দেয়ার চেষ্টা করুন।
  • প্রথম পরিচয় ব্যক্তিগত প্রশ্ন করা থেকে বিরত থাকুন। প্রয়োজনে আগে নিজের সম্পর্কে বলুন তারপরে জিজ্ঞাসা করতে পারেন।
  • ভালো কাজের প্রশংসা করার অভ্যাস গড়ে তুলুন।

ইতিবাচক অভ্যাস করুন

ভালোবাসার মাধ্যমে নিজের ব্যক্তিত্বকে ফুটিয়ে তোলা যায়। কিছু কিছু অভ্যাস রয়েছে যেগুলো আপনার মধ্যে যদি নিয়ে আসতে পারেন তাহলে খুব সহজেই স্মার্ট হয়ে উঠতে পারবেন। যেমন-

  • নিজের জ্ঞান বৃদ্ধি করার জন্য বিভিন্ন মাধ্যমে প্রশ্ন করতে পারেন।
  • রুটিন অনুযায়ী চলার চেষ্টা করুন। নিজের রুটিন তৈরি করুন।
  • প্রতিদিন নতুন কিছু শেখার চেষ্টা করুন।

মস্তিষ্কের ক্ষমতা বৃদ্ধি করুন

আপনি কতটা স্মার্ট সেটা অবশ্যই আপনার মস্তিষ্কের ওপর নির্ভর করে। বুদ্ধিমত্তা দিয়েই স্মার্টনেস বিবেচনা করা হয়। তাই স্মার্ট হয়ে উঠতে হলে প্রথমেই আপনার মস্তিষ্কের ক্ষমতা বৃদ্ধি করতে হবে। মস্তিষ্কের ক্ষমতা বৃদ্ধি করার জন্য সৃজনশীল কর্মকে গুরুত্ব দিন। স্মার্ট হব কিভাবে যেমন

How-to-be-Smart

  • ছবি আঁকা শিখতে পারেন
  • বেশি বেশি গণিত সমাধান করতে পারেন।
  • আইকিউ বিভাগের প্রশ্ন গুলো মনোযোগ সহকারে অনুসরণ করতে পারেন।
  • পাজেল বার রুবিক্স কিউব গেম খেলতে পারেন।
  • সুডোকু খেলতে পারেন

শিক্ষাতে মনোযোগ দিন

শিক্ষা বা বই পড়ার মাধ্যমে নিজের স্মার্টনেস বাড়াতে পারেন। মনে রাখবেন শিক্ষার কোন শেষ নেই। বই পড়ার মাধ্যমে আপনার জ্ঞানের পরিধি যেমন বৃদ্ধি পাবে সেই সাথে আপনার স্মার্টনেসও অনেক উন্নত হবে। তাই স্মার্টনেস নিয়ে আসতে হলে বই পড়ার অভ্যাস গড়ে তুলতে হবে। এছাড়াও আপনি শিক্ষা সম্পর্কিত নিম্মোক্ত পদ্ধতিগুলো অবলম্বন করতে পারেন।

  • বই পড়ার অভ্যাস গড়ে তুলুন
  • বিভিন্ন ভাষার শব্দার্থ শিখুন
  • অভিজ্ঞতা থেকে শিখুন

জীবনের অভিজ্ঞতা কে প্রসারিত করুন

জীবনকে জানুন এবং জীবনে কে জানার চেষ্টা করুন। আর জীবনকে জানার চেষ্টা করতে হলে অবশ্যই চারদেয়ালের ঘরে থেকে সেটা সম্ভব নয়। শুধুমাত্র ঘরে বসে থেকে আপনি জীবনকে কখনো পরিপূর্ণভাবে জানতে পারবেন না। জীবনে অভিজ্ঞতাকে প্রসারিত করার জন্য নিচের কাজগুলো করতে পারেন।

  • দেশ-বিদেশ বিভিন্ন জায়গায় ভ্রমণ করুন।
  • নতুন ভাষা শিখতে পারেন
  • নিজের পরিবারকে অবশ্যই পর্যাপ্ত পরিমানে সময় দিবেন
  • বন্ধুদেরকে সময় দেবেন

আজকের এই আলোচনার মাধ্যমে আপনাদেরকে যে তথ্যগুলো জানিয়েছে সেই তথ্যগুলো অবশ্যই আপনার জীবনে উপকারে আসবে। মনে রাখবেন স্মার্টনেস মানে বাহ্যিক সৌন্দর্যতা নয়। যে কেউ তার কর্মদক্ষতা, বিচক্ষণতা বা ব্যবহার ইত্যাদি পরিবর্তনের মাধ্যমে স্মার্ট হয়ে উঠতে পারে। স্মার্ট হব কিভাবে

সমাজে স্মার্ট হওয়ার গুরুত্ব অনেক। তেমনিভাবে অনেক পদ্ধতি অবলম্বন করে স্মার্ট হয়ে ওঠা যায়। আজকের এই আলোচনার মাধ্যমে আমি আপনাদেরকে স্মার্ট হয়ে ওঠার গুরুত্বপূর্ণ বিষয়গুলো জানিয়েছি। আশাকরি আমাদের আজকের এই আলোচনায় উল্লেখিত তথ্যসমূহ আপনি বুঝতে পেরেছেন। আমার সাথে থাকার জন্য সকলকে ধন্যবাদ

Leave a Reply

Your email address will not be published.