খুব শীঘ্রই রমজান মাস আসতে চলেছে। আগামী ৩ এপ্রিল ২০২২ তারিখ থেকে বাংলাদেশে রমজান মাস শুরু হবে। সেই জন্য ইসলামিক ফাউন্ডেশন কর্তৃপক্ষ কর্তৃক ইতিমধ্যে ২০২২ সালের রমজান ক্যালেন্ডার প্রকাশ করা হয়েছে। রমজানের সময় সূচি সম্পর্কিত সকল বিস্তারিত তথ্য সমূহ আমরা আমাদের আজকের আলোচনার উল্লেখ করেছি। আমাদের আজকের এই আর্টিকেলের মাধ্যমে আপনারা ঢাকা জেলার সেহরি ও ইফতারের সময়সূচি সম্পর্কে জানতে পারবেন। আপনি যদি ঢাকা জেলার একজন অধিবাসী হয়ে থাকেন এবং ঢাকা জেলার সেহরি ও ইফতারের সময়সূচি বিস্তারিত জানতে চান তাহলে আলোচনার শেষ পর্যন্ত আমাদের সাথে থাকুন। Read in English

আমাদের আজকের আলোচনার মাধ্যমে আপনি ঢাকা জেলার রোজার ক্যালেন্ডার, ঢাকা জেলার রোজার সময়সূচি, ঢাকা জেলার সেহরি ও ইফতারের সময়সূচি, ঢাকা জেলার সাথে ঢাকা জেলার সেহরি ও ইফতারের সময়সূচি এর পার্থক্য সহ আরও সকল প্রয়োজনীয় তথ্য সমূহ জানতে পারবেন।

রমজানের গুরুত্ব ও ফজিলত

সবার আগে রমজানের গুরুত্ব ও ফজিলত সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্য জেনে নিন। বিশ্বের মুসলিম উম্মাহর জন্য রমজান মাসের গুরুত্ব ও ফজিলত অপরিসীম। প্রতিটি মুসলমানের জন্য রমজান আসে বরকত নিয়ে। পুরো একমাস ইবাদত বন্দেগীতে কাটানোর মাধ্যমে জীবনের সকল গুনাহ গুলো মাফ করার সুযোগ দিতে আসে রমজান মাস। প্রতিটি মুসলমানের জন্য পুরো রমজান মাস সিয়াম পালন ফরয করা হয়েছে। রমজান মাস প্রতিটি মুসলিমের জন্য অতি গুরুত্বপূর্ণ। এই মাসেই পবিত্র কুরআন মাজীদ নাযিল করা হয়। সারা মাস জুড়ে মুসলিমরা আল্লাহর কাছে ইবাদত বন্দেগী করে। রমজান মাসের রোজা কে মুসলিমের ঢাল হিসেবে তুলনা করা হয়। একটি দল যেমন শত্রুর তরবারির আঘাত থেকে রক্ষা করে ঠিক তেমনি সিয়াম আমাদেরকে পাপ কাজ হতে রক্ষা করে। তাই প্রতিটি মুসলিমের জীবনে রমজানের গুরুত্ব অপরিসীম।

ঢাকা জেলার রোজার ক্যালেন্ডার ডাউনলোড ২০২২

আসন্ন রমজান মাসের ক্যালেন্ডার সম্পর্কে সকল বিস্তারিত তথ্য সমূহ তথ্যসমূহ আজকের আলোচনায় উল্লেখিত হয়েছে। আমরা সবাই জানি যে রমজান মাস শুরু এবং শেষ হওয়া সম্পূর্ণ চাঁদ দেখার উপর নির্ভরশীল হয়ে থাকে। তবে পূর্ববর্তী ধারণা অনুযায়ী বলা যায় যে ৩ এপ্রিল ২০২২ তারিখ থেকে রমজান মাস শুরু হতে যাচ্ছে। আসন্ন রমজান মাসের সেহরি ও ইফতারের সময়সূচি ওয়েবসাইটে প্রকাশিত হয়েছে। আমরা ঢাকা জেলার রোজার ক্যালেন্ডার image এবং পিডিএফ ফাইলে প্রকাশ করেছি। আপনাদের সুবিধা মত ফাইল ডাউনলোড করে নিতে পারবেন।

ramadans-time

এছাড়াও ইসলামিক ফাউন্ডেশন কর্তৃপক্ষ কর্তৃক প্রকাশিত ঢাকা জেলার জন্য প্রযোজ্য সেহরি ও ইফতারের সময়সূচি সম্পর্কিত ক্যালেন্ডার প্রদান করা হয়েছে। ঢাকা জেলার সকল অধিবাসীগণ সঠিক ইফতার ও সেহরীর সময়সূচী ডাউনলোড করে নিতে পারছেন। প্রতিটি ফাইল এর নিচে প্রদানকৃত ডাউনলোড অপশনে ক্লিক করে আপনার প্রয়োজন মত image এবং পিডিএফ ফাইল ডাউনলোড করে নিতে পারবেন।

ঢাকা জেলার রোজার সময়সূচি ২০২২

ঢাকা জেলার অধীনস্থ প্রতিটি এলাকার জন্য ইফতার ও সেহরীর সঠিক এবং নির্ভুল সময়সূচী নিচে প্রদান করা হয়েছে। ২০২২ সালের রমজান মাসের সকল তথ্য সমূহ সম্বলিত ইমেজ এবং পিডিএফ ফাইল প্রদান করা হয়েছে।

সর্বপ্রথম ইসলামিক ফাউন্ডেশন কর্তৃপক্ষ কর্তৃক ঢাকা জেলার সময় অনুযায়ী রমজান মাসের ক্যালেন্ডার তৈরি করা হয়। আমরা জানি যে ঢাকা জেলার সাথে প্রত্যেকটি জেলা শহরে নির্দিষ্ট কিছু সময় পার্থক্য অনুযায়ী ইফতার ও সেহরীর সময়সূচী তৈরি করা হয়। সেই নিয়ম অনুযায়ী পরবর্তীতে আমরা ঢাকা জেলার নিজস্ব সময় অনুযায়ী ইফতার ও সেহরীর সময়সূচী প্রকাশ করেছে। সাথে সাথে আমরা ঢাকা জেলার সময়সূচী অনুযায়ী ইসলামী ফাউন্ডেশন কর্তৃক প্রকাশিত সেহরি ও ইফতারের সময়সূচি ইমেজ ফাইল প্রকাশ করেছি। আপনারা সকল তথ্য সমূহ জানতে পারবেন।

ঢাকা জেলার সাথে অন্যান্য জেলার সেহরি ও ইফতারের সময়সূচির পার্থক্য ২০২২

ঢাকা জেলার সাথে বাংলাদেশের প্রতিটি জেলা এবং বিভাগীয় শহরে নির্দিষ্ট কিছু সময় সূচির পার্থক্য রয়েছে। এবং এই পার্থক্য মেনেই প্রতিটি জেলা শহরের ইফতার ও সেহরীর সময়সূচী তৈরি করা হয়।

ঢাকার সময়ের সাথে সময় বাড়াতে হবে

জেলার নাম  সেহরী ইফতার
গাজীপুর, শরিয়তপুর, মাদারীপুর, পিরোজপুর, বরিশাল, ঝালকাঠি, বরগুনা  ১ মিনিট  ১ মিনিট
ময়মনসিংহ, টাঙ্গাইল, বাগেরহাট, জামালপুর, শেরপুর, মানিকগঞ্জ  ২ মিনিট  ২ মিনিট
ফরিদপুর, গোপালগঞ্জ, সিরাজগঞ্জ, নড়াইল, খুলনা  ৩ মিনিট  ৩ মিনিট
মাগুরা, রাজবাড়ি, পাবনা  ৪ মিনিট  ৪ মিনিট
সাতক্ষীরা, কুষ্টিয়া, যশোর, রংপুর, ঝিনাইদহ  ৬ মিনিট  ৬ মিনিট
নীলফামারী, চুয়াডাঙ্গা, কুড়িগ্রাম, গাইবান্ধা  ৬ মিনিট  ৬ মিনিট
রাজশাহী, বগুড়া, মেহেরপুর, লালমনিরহাট  ৭ মিনিট  ৭ মিনিট
চাপাইনবাবগঞ্জ, নওগা, নাটোর  ৮ মিনিট  ৮ মিনিট
দিনাজপুর, ঠাকুরগাও, পঞ্চগড়  ১১ মিনিট  ১১ মিনিট

ঢাকার সময়ের থেকে কমাতে হবে

জেলার নাম  সেহরী ইফতার
নরসিংদী, নারায়ণগঞ্জ, মুন্সিগঞ্জ, চাদপুর  ১ মিনিট  ১ মিনিট
কিশোরগঞ্জ, পটুয়াখালি, ভোলা, লক্ষ্মীপুর  ২ মিনিট  ২ মিনিট
নেত্রকোনা, কুমিল্লা, বি-বাড়িয়া  ৩ মিনিট  ৩ মিনিট
নোয়াখালী, ফেনী, সুনামগঞ্জ, হবিগঞ্জ  ৪ মিনিট  ৪ মিনিট
চট্টগ্রাম  ৫ মিনিট  ৫ মিনিট
কক্সবাজার, সিলেট, মৌলভীবাজার  ৬ মিনিট  ৬ মিনিট
খাগড়াছড়ি, রাঙ্গামাটি, বান্দরবান  ৭ মিনিট  ৭ মিনিট

image

শেষ কথা

রমজান মাস হচ্ছে ইবাদতের মাস। এ মাসে যত ইবাদত করা যাবে ততো বেশি লাভ। অন্যান্য দিনের তুলনায় রমজান মাসেই ইবাদতের ফজিলত অনেক বেশি এবং অনেক বেশি সওয়াব পাওয়া যায়। সুতরাং আমরা সকলে রমজান মাসের রোজা রাখব এবং বেশি বেশি করে ইবাদত করব। আল্লাহ আপনাদের সকলকে রমজান মাসে রোজা রাখার তৌফিক দান করুন। আমিন

Leave a Reply

Your email address will not be published.