ক্যালসিয়ামের অভাবে আমাদের হাড়ের বিভিন্ন সমস্যা হয়ে থাকে। হাড়ের ক্ষয় জনিত রোগের কারণ হিসেবে ও ক্যালসিয়াম এর অভাব কে দায়ী করা হয়। ক্যালসিয়ামের অভাবে আমাদের হাঁটাচলা করতে সমস্যা হয় অথবা বিভিন্ন সময় ভোগান্তিতে পড়তে হয়। হাড়ের যত্ন নিতে বাঙালিরা বেশিরভাগ সময়ই উদাসীন। যার ফলে ক্যালসিয়াম জনিত সমস্যায় প্রায় সবাইকেই পড়তে হয়। আজকের এই পোস্টে আমরা আপনাদের জানাব এমন ৬ টি খাবার সম্পর্কে যেগুলো আপনার খাদ্য তালিকায় রাখলে সহজেই ক্যালসিয়ামের অভাব থেকে মুক্তি পেতে পারেন। Read in English

এই খাবারগুলো আপনাকে ক্যালসিয়ামের অভাব থেকে বাঁচিয়ে রাখবে এবং দৈনন্দিন পুষ্টি চাহিদা পূরণ করবে। আমাদের আজকের এই নিবন্ধটি সম্পূর্ণ পড়লে আপনি এই খাবার ৬ টি সম্পর্কে সকল তথ্য সহজে জানতে পারবেন। তাই সকল পাঠক কে আমাদের আজকের আলোচনাটি শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত মনোযোগ সহকারে পড়ার জন্য অনুরোধ করা হলো।

অতিরিক্ত সফট ড্রিংকস, অতিরিক্ত লবণ এবং মিষ্টি জাতীয় খাবার আমাদের শরীরের হাড়ের খুব ক্ষতি করে থাকে। অতিরিক্ত চা-কফি পান করাও শরীরের জন্য ক্ষতিকর। আমাদের অবশ্যই উচিত এই সকল খাবার গুলো সব সময় এড়িয়ে চলা। এরকম অনেক খাবার রয়েছে যেগুলো আমরা নিয়মিত খেয়ে থাকি এবং অজান্তেই সেগুলো আমাদের শরীরের বিভিন্ন অঙ্গের ক্ষতি করে থাকে। আমাদের সবারই এই সকল খাবার গুলো সম্পর্কে জানা উচিত।

ক্যালসিয়ামের অভাব কেন হয়

ক্যালসিয়াম এর অভাব দূর করার তথ্যসমূহ জানার আগে আমাদের অবশ্যই জানতে হবে কী কারণে আমাদের শরীরে ক্যালসিয়ামের অভাব হতে পারে। আমাদের আলোচনায় আমরা প্রথমের সেগুলো আপনাদের জানাচ্ছি।

ক্যালসিয়াম মূলত এক ধরনের খনিজ পদার্থ যা আমাদের শরীরের হাড় গঠনে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে। আমাদের শরীরে হাড় গঠন এবং দাঁতের স্বাস্থ্য রক্ষায় এর গুরুত্ব অপরিসীম। নিম্নলিখিত কাজগুলো করার ফলে ক্যালসিয়ামের অভাব দেখা দিতে পারে।

  • মাত্রাতিরিক্ত ব্যায়াম করলে শরীরে ক্যালসিয়ামের ঘাটতি দেখা দিতে পারে।
  • প্রচুর পরিমাণে কোমল পানীয় পান করলে ক্যালসিয়ামের ঘাটতি হয়।
  • দুর্বল শরীরে ক্যালসিয়ামের ঘাটতি দেখা যেতে পারে।
  • অনেক সময় নারী ক্রীড়াবিদদের মেনোপজের সময় বেশি ক্যালসিয়াম ক্ষয় হয়ে থাকে।
  • অতিরিক্ত চিনিযুক্ত বা মেদ যুক্ত খাবার খাবার খেলে ক্যালসিয়ামের ঘাটতি হয়।
  • অ্যালকোহল ও তামাক জাতীয় খাদ্য খেলে শরীরে ক্যালসিয়ামের ঘাটতি দেখা দিতে পারে।
  • অতিরিক্ত সব ড্রিংস চা-কফি পান করলে ক্যালসিয়ামের ঘাটতি দেখা যায়।
  • মিহি শস্য, মাইট ইত্যাদিতে ক্যালসিয়ামের অভাব ঘটে।

ক্যালসিয়ামের ঘাটতি পূরণ কারী ৬ খাবার

আলোচনার এই অংশে আমরা জানবো সেই সব ৬ টি খাবার সম্পর্কে যেগুলো আমাদের ক্যালসিয়ামের ঘাটতি পূরণ করতে পারে। আজকের এই আলোচনায় আমরা যে ৬ টি খাবার সম্পর্কে তথ্য উল্লেখ করব সেগুলো হল-

  • ব্রকলি
  • টক জাতীয় ফল সমূহ
  • সয়াবিন
  • ঢেঁড়স
  • কাঠবাদাম ও
  • তিলের বীজ

ব্রকলি

সর্ব প্রথমে আমরা ব্রকলি এর খাদ্যগুণাগুণ সম্পর্কে জানব। মজবুত দাঁত ও হাড় পেতে নিয়মিত ব্রকলি খাওয়া যেতে পারে। এই সবজিটি ক্যালসিয়ামের ঘাটতি পূরণের জন্য অন্যতম প্রধান একটি খাবার। ব্রকলি তে প্রচুর পরিমাণে ক্যালসিয়াম থাকে। এই সবজিটির সহজেই আপনার শরীরে ক্যালসিয়ামের ঘাটতি পূরণ করতে সক্ষম।

brokoli
ব্রকলি

টক জাতীয় ফল সমূহ

বিভিন্ন টক জাতীয় ফল থেকে প্রচুর পরিমাণে ক্যালসিয়াম পাওয়া যায়। শরীরকে সুস্থ এবং ক্যালসিয়াম এর অভাব মুক্ত রাখতে নিয়মিত টকজাতীয় ফল সমূহ খেতে পারেন। কমলালেবু, বাতাবি লেবু, পাতিলেবুর মতো যে কোন লেবুতেই থাকে ভিটামিন সি আর সাইট্রিক অ্যাসিড। এই খাদ্য উপাদান গুলো আপনার শরীরে ক্যালসিয়ামের ঘাটতি পূরণ করে।

tok-jatiyo-ful
ফল সমূহ

সয়াবিন

ক্যালসিয়ামের অন্যতম প্রধান একটি উৎস হল সয়াবিন। সয়াবিনে প্রচুর পরিমাণে ক্যালসিয়াম বিদ্যমান। এক কাপ সয়াবিনে প্রায় ১৭৫ মিলিগ্রাম ক্যালসিয়াম থাকে। তাই শরীরে ক্যালসিয়ামের ঘাটতি পূরণ করতে নিয়মিত সয়াবিন খান।

soyabean
সয়াবিন

ঢেঁড়স

প্রায় ৫০ গ্রাম ঢেঁড়সে ১৭৫ মিলিগ্রাম ক্যালসিয়াম বিদ্যমান। শরীরে ক্যালসিয়ামের ঘাটতি পূরণ করতে নিয়মিত ঢেঁড়স অথবা ভেন্ডি খেতে পারেন।

Dheros
ঢেঁড়স

কাঠবাদাম

যেকোনো ধরনের বাদাম ক্যালসিয়ামের অনেক বড়  উৎস। কাঠবাদামে প্রচুর পরিমাণে ক্যালসিয়াম থাকে। কাঠবাদাম খাওয়ার মাধ্যমে শরীরে ক্যালসিয়ামের ঘাটতি পূরণ করা সম্ভব। শরীরে ক্যালসিয়ামের ঘাটতি দ্রুত পূরণ করতে নিয়মিত কাঠ বাদাম খাওয়া যেতে পারে। এর মাধ্যমে আপনি খুব সহজেই শরীরে ক্যালসিয়ামের ঘাটতি পূরণ করে সুস্থ ও সবল হার এবং দাঁত পেতে পারেন।

kathbadam
কাঠবাদাম

তিলের বীজ

তিলের বীজ এবং তিলের তেলের প্রচুর পরিমাণে ক্যালসিয়াম থাকে। শরীর সুস্থ রাখতে ক্যালসিয়াম অত্যন্ত জরুরী। আর ক্যালসিয়ামের ঘাটতি পূরণ করতে তিনি অন্যতম প্রধান উপাদান হতে পারে। ১০০ গ্রাম তিলের বীজ প্রায় এক হাজার মিলিগ্রাম ক্যালসিয়াম বিদ্যমান। নিয়মিত তিলের বীজ খেলে শরীরে ক্যালসিয়ামের অভাব মুক্ত রাখা সম্ভব।

tiler-bij
তিলের বীজ

শরীরকে ক্যালসিয়ামের অভাব মুক্ত রাখতে উপরোক্ত ৬ টি খাবার নিয়মিত খেতে পারেন। শরীরে হাড় এবং দাঁত খুবই গুরুত্বপূর্ণ। তাই আমাদের অবশ্যই শরীরে ক্যালসিয়ামের অভাব মুক্ত রাখতে হবে। এরকম আরো আলোচনা পেতে আমাদের সাথেই থাকুন।

Leave a Reply

Your email address will not be published.